Breaking News
Home / বিনোদন / ছবিতে মধ্যপ্রাচ্যের সুন্দরী ১০ নারী

ছবিতে মধ্যপ্রাচ্যের সুন্দরী ১০ নারী

বিশ্বের অন্যান্য শোবিজ অঙ্গনের মতো পিছিয়ে নেই মধ্যপ্রাচ্যের শোবিজ অঙ্গনও। যেখানে কাজ করছেন অনেক গুণী ব্যক্তিত্বরা। নিজেদের মেধার সাক্ষর রাখছেন সংগীত, অভিনয়সহ বিভিন্ন বিষয়ে।
এসব অঙ্গনে পুরুষের পাশাপাশি নারীরাও অংশগ্রহণ করছেন। তারা যেমন শরীরী সৌন্দর্যের দ্যুতি ছড়াচ্ছেন তেমনি মেধারও সাক্ষর রেখে চলেছেন। মধ্যেপ্রাচ্যের সুন্দরী ১০ নারীকে নিয়ে সাজানো হয়েছে এই ফটো ফিচার।

Loading...


রানিয়া আল আব্দুল্লাহ : কুয়েতি নারী রানিয়া আল আব্দুল্লাহ। তাকে জর্দানের রাণী বলা হয়। ৪৬ বছর বয়সি এই নারী শুধু সুন্দরী নন, বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে থাকেন। তবে আইনি জটিলতা সম্পৃক্ত কাজই বেশি করে থাকেন। রানিয়া সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও সক্রিয়। তিনি ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, টুইটার ও ইউটিউবে সক্রিয় থাকেন। টুইটারে তার ৪ মিলিয়নের বেশি অনুসারী রয়েছে।

Loading...

সোফিয়া এল মারিখ : মরক্কোর পপ শিল্পী সোফিয়া এল মারিখ। তিনি শুধু মধ্যপ্রাচ্যের মানুষের কাছেই সুন্দরী নারী হিসেবে পরিচিত নন, পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দরী নারীদের একজন।

মোনা আবু হামজ : লেবাননের টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব ও উপস্থাপিকা মোনা আবু হামজ। টেলিভিশন শো ‘টক অব টাউন’ শিরোনামের অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন তিনি। এই অনুষ্ঠানের উপস্থাপিকা হিসেবেই বেশি পরিচিত মোনা। সুন্দরী নারী হিসেবে তিনি লেবাননেই পরিচিত নন, মধ্যপ্রাচ্য বা বিশ্বের সুন্দরী নারীদের তালিকাতেও রয়েছেন তিনি।

লেইলা হাতামি : ইরানি অভিনেত্রী লেইলা হাতামি। অস্কার বিজয়ী সিনেমা ‘এ সেপারেশন’ সিনেমায় অভিনয় করে জনপ্রিয়তা লাভ করেন। তার বয়স ৪৪ বছর হলেও এখনো অটুট তার শরীরী সৌন্দর্য। তিনি ইরানের সবচেয়ে সুন্দরী নারী।


সিরিন আবদেল নূর : লেবাননের গায়িকা, মডেল ও অভিনেত্রী সিরিন আবদেল নূর। তার অনেক গানের অ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে। আর এসব অ্যালবামের গানই তাকে আরব বিশ্বে জনপ্রিয় করে তুলেছে। বিশেষ করে ‘ইফ হি লুকস ইন মাই আই’ শিরোনামের গানটি। অভিনয়ের চেয়ে গান গাইতেই বেশি দক্ষ সিরিন।

লামিতা ফ্রাঞ্জে : লামিতা একজন অভিনেত্রী ও সাবেক সুন্দরী প্রতিযোগী। তিনি মিস লেবানন প্রতিযোগিতায় ফার্স্ট রানার আপ হয়েছিলেন। তারপর অভিনয়ে নাম লেখান তিনি। বিভিন্ন চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন শোয়ে কাজ করেছেন এই অভিনেত্রী।

মে হারিরি : লেবাননের পপ শিল্পী ও অভিনেত্রী মে হারিরি। তিনি সংগীতশিল্পী মেলহেম বারাকাতের সাবেক স্ত্রী। তার প্রথম একক অ্যালবাম এখনো আরব দুনিয়াতে মুক্তি পায়নি কারণ ভিডিও ক্লিপের গল্প ভূতুরে ও যৌনতায় ভরপুর।

দনিয়া সমীর ঘানেম : মিশরের সংগীতশিল্পী ও অভিনেত্রী দনিয়া সমীর ঘানেম। তাকে অনেক চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে দেখা গেছে। দ্য এক্স ফ্যাক্টর শিরোনামের একটি অনুষ্ঠানও সঞ্চালনা করতেন তিনি। তার নিষ্পাপ চেহারা ও হৃদয় স্পর্শী হাসির জাদুতে যে কেউ তার প্রেমে পড়ে যাবে।

হাইফা ওয়েহবে : মিশরের সংগীতশিল্পী হাইফা লেবাননের বংশোদ্ভুত। তিনি আরবের একজন সফল গায়িকা। তিনি পিপল ম্যাগাজিনের জরিপে ৫০ সুন্দর মানুষের একজন নির্বাচিত হয়েছিলেন।

গ্যাব্রেয়েল বো রাচেদ : লেবাননের অভিনেত্রী গ্যাব্রেয়েল। তিনি ‘মিস লেবানন ২০০৫’ বিজয়ী, দেখতেও অনেকটা বার্বি ডলের মতো। তিনি স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছেন। ইংলিশ, ফ্রেঞ্চ, স্প্যানিশ, আরবি ভাষায় কথা বলতে পারেন এই সুন্দরী অভিনেত্রী।

Comments

comments

Check Also

সালমানের চেয়েও এগিয়ে হিরো আলম!

বলিউড খানদের পেছনে ফেলা যেন-তেন কথা না। আর এই অবিশ্বাস্য কাজটি করেছেন বাংলাদেশের হিরো আলম। …